Post View : 14
 

সুবহে সাদিক

চারদিকে অন্ধকার
কিছু জায়গায় গুড়ি বৃষ্টির আশঙ্কা,
এ আঁধারে অনুভূত শুনশান নিরবতা..
নগরীর নিয়ন বাতির অস্পষ্টতা
মৃদু স্বর্গীয় বাতাসের আলতো স্পর্শ;
থেকে থেকে আসা নৈঃশব্দের শব্দ:

এ অস্পষ্টতা ভেদ করে-
অন্ধকারের বুক চিরে মিনার-ভেদে
আসসালাতু খাইরুম মিনান্ নাউম
(ঘুম থেকে নামাজ উত্তম) ধ্বনি
নিমিষেই জানাল ভোরের আগমনি;
জানাল আরেকটি দিবসের সূচনা।

এভাবে ফুরায় দিন, বুঝি কি কেহ?
ক্ষণিকের অতিথি থেকে নিথর দেহ!

এই ক্ষণে প্রার্থনা এই অজ্ঞ পাপীর–
আরো একটা সুবহে সাদিকের সাক্ষাতে
কৃতজ্ঞতায় নুয়ে পড়ি যেন সিজদায়;
আর যে ক’টি দিন আছে মোর থলেতে
প্রতিটি সকাল হোক রহমতে স্নাত,
সারা জীবন হোক আলোকময়;
রবের দয়ায় বেষ্টিত হোক সমগ্রটি, সারাটি

হে মালিক, হে রাহিম, হে গফুর!
করো রহমানের দয়াতে জীবন ভরপুর…
দয়া, ক্ষমা, রহমত, নাজাতের বর্ষণে
প্লাবিত হোক মোর এ ক্ষণজন্ম,
কিভাবে করতে হয় প্রার্থনা, জানিনা
তবুও, এ আকুতি মোর আজন্ম।।


মোঃ নাজিম উদ্দিন
অক্টোবর ৫, ২০২৩