বুক রিভিউঃ “বি স্মার্ট উইথ মুহাম্মদ”

0
28

বুক রিভিউঃ “বি স্মার্ট উইথ মুহাম্মদ (সাঃ)”
—————

স্মার্টনেস কি? বলা যায়, স্মার্টনেস ইজ হোয়াট স্মার্ট ম্যান ডাজ। মানুষের জন্য সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট আদর্শ মহামানব হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়া সাল্লাম ছিলেন স্মার্টনেসের অনুপম উদাহরণ। তিনি একদিকে ছিলেন স্মার্ট শিশু, স্মার্ট কিশোর-যুবক, স্মার্ট শাসক, স্মার্ট শাসক এবং সর্বোপরী স্মার্ট রাষ্ট্রনায়ক। সর্বশেষ ও সর্বশ্রেষ্ট নবী ও রাসূল, সর্বশ্রেষ্ঠ ধর্মপ্রণেতা এবং জীবদদ্শায় দুনিয়াবি হায়াতে তিনি ছিলেন ‘স্মার্টেস্ট মানুষ’। পৃথিবীর সর্বকালের মানুষের জন্য এক অনুপম অনুকরণীয় আদর্শ ও অনুকরণীয় জীবনচরিত রেখে যান প্রিয় নবীজী। মাত্র ৬৩ বছরর হায়াতে জিন্দেগিতে তিনি জীবনের একেকটি অধ্যায়ে কীভাবে সত্যিকারের ‘স্মার্ট’ পদ্ধতিতে পার করেছেন, শিখিয়েছেন, জানিয়েছেন, বিশ্বাস করেছেন, কাজ করেছেন, মোকাবেলা করেছেন অজস্র সংকট।
নিজ ঘর-বাড়ি-স্বজন, দেশবাসীর কাছে আল্লাহর একত্ববাদের, ইসলাম ধর্মের বার্তা পৌঁছানোর আগে ও পরে কীভাবে তিনি মু্খোমুখি হয়েছেন নানাবিদ সংকট, সংশয় ও সমস্যার আর কীভাবে ‘স্মার্ট’লি মোকাবিলা করেছেন, হয়েছেন সফল- এ সব বিষয় যুগ, কাল বা অধ্যায় ওয়ারি উপস্থাপন করা হয়েছে এ গ্রন্থে।

শুধু তা-ই নয়, কীভাবে পিতামহের ঘরে, চাচার ঘরে, দুধমায়ের তত্ত্বাবধানে থেকে নিষ্পাপ শিশু, বাড়ন্ত কিশোর কখনো রাখালের কাজও যেমন করতে হয়েছে, তেমনি সফররর প্রিয় সঙ্গীও হয়েছেন শ্রদ্ধেয় চাচা আবু তালিবের, কীভাবে সকলের প্রিয় পাত্র হিসেবে পার করেন শৈশব, কৈশোর, তা সুনিপুণভাবে বিধৃত হয়েছে এ গ্রন্থে।
সাথে সাথে নবীজির জীবনের সেসব গুরুত্বপূর্ণ অংশ থেকে শিক্ষা নিয়ে বর্তমান যুগে আমরা কীভাবে বা কী কী পন্থায় তা নিজের জীবনে কাজে লাগাতে পারি- তা ছকাকারে উপস্থাপন করার মাধ্যমে লেখকের মুন্সিয়ানা প্রকাশিত হয়েছে প্রতিটা পরতে পরতে। উৎসুক পাঠক প্রতি অধ্যায়ে খুঁজে পাবেন নিজের জীবনে এসব অমূল্য শিক্ষা প্রতিফলনের তাগিদ।
বইটি আদ্যাপন্ত পড়ে বুঝা যাবে, নবীজীবনের পূর্বের জীবনের বেশি বর্ণনা এসেছে মনে হলেও শেষাংশে মদিনায় হিযরত, বিভিন্ন যুদ্ধ মোকাবেলা, মদিনায় বিভিন্ন সংকট, উত্তরণ এবং সর্বোপরী মদিনা হতে কুরাইশবাসীর সাথে সংঘটিত বিভিন্ন যুদ্ধ, সংঘর্ষ ইত্যাদিতে প্রত্যুৎপন্নমতিতা, দক্ষ নেতৃত্ব, দূরদর্শিতা, রাষ্ট্রনায়কোচিত ব্যবহার এবং সর্বোপরী আল্লাহর প্রিয় এবং মনোনীত ধর্ম ইসলামের শান্তি ও একত্ববাদের অমীয় বাণী সর্বত্র পৌঁছিয়ে দিয়ে মক্কা বিজয় এবং বিদায় হজ্জ্বের ভাষণসহ সকল ক্ষেত্রে নবীজীর চরিত্রের মাহাত্ম্য ও মাধুর্য, কোমলতা, কাঠিন্য, দয়া ও সরলতা, বিশ্বাস ও আত্মবিশ্বাস, কর্ম ও এবাদত-সাধনা, সুশীল সমাজ-সংসার জীবন, সমাজসেবা ও রাষ্টোন্নয়ন ইত্যাদি সুন্দর শব্দের তুলিতে চিত্রায়িত হয়েছে “বি স্মার্ট উইথ মুহাম্মদ (সাঃ)” গ্রন্থের বিভিন্ন অধ্যায়ে।

সর্বোপরী, বইটির অনিন্দ্য ম শিরোনাম “বি স্মার্ট উইথ মুহাম্মদ (সাঃ)” সত্যি যথার্থ। বইটির প্রতিটি পরতে পরতে উঠে এসেছে আমাদের জন্য প্রয়োজনীয় শিক্ষা, জীবনের জন্য সুন্নাহ, বর্ণাত হয়েছে আমাদের জন্য শিক্ষণীয় বার্তা, শিক্ষা বা প্রশিক্ষণ- কীভাবে আমরা নিজেদের জীবনে, সকল পরিস্থিতিতে এ সব সুন্নাহের, চারিত্রিক বৈশিষ্টের প্রয়োগ ঘটাতে পারি, শিখতে পারি নিজেদের জীবনকে নবীজীর সর্বোচ্চ “স্মার্ট”নেসের রঙে রঙ্গিণ, সুশোভিত, সুভাষিত করতে।

তথ্য উপাত্ত, প্রাচ্য, পাশ্চাত্যের বহু বইয়ের তথ্যসূত্রে সাজানো বইটি পাঠকের হৃদয়ে সহজে স্থান করে নিবে- পারবে জীবন গঠন ও উন্নয়নের এক অনন্য হাতিয়ার হতে।

বইয়ের নামঃ “বি স্মার্ট উইথ মুহাম্মদ (সাঃ)”
লেখকঃ ডঃ হিশাম আল আওয়াদি
অনুবাদঃ মাসুম শরীফ
প্রকাশকঃ গার্ডিয়ান পাবলিকেশন্স
পৃষ্টাঃ ১৩৮+, মূল্যঃ ২৫০ টাকা

অনুবাদক তার জ্ঞানের গভীরতা, ভাষার উপর দখল ইত্যাদির যথাযথ ব্যবহার করেছেন পাঠকের সামনে মহজ প্রাঞ্জল ভাষায় বইটি উপস্থাপনের মাধ্যমে।

বইটি সমৃদ্ধ করুক পাঠকের জ্ঞানগৃহ, পরিপূর্ণ করতে সহায়তা করুক পাঠকের জ্ঞান ভান্ডার।

শুভকামনা।


মোঃ নাজিম উদ্দিন