ফ্যাক্টঃ মানুষ

0
44

ফ্যাক্ট: মানুষ

——————–

মানুষ খুব বিচিত্র প্রাণী। চলে, বলে কৌশলে, চলনে, বলনে সব ক্ষেত্রে
মানুষের আচার আচরণ ব্যবহার বিধি ভিন্ন হয়, বিচিত্রভাবে।

কিছু মানুষ আন্তরিকভাবে পছন্দ করবে, থাকবে সত্যিকারের সুহৃদ হিসেবে। সুখে-দুঃখে খোঁজ খবর নেয়, পাশে দাঁড়ায়, মিস করে, সহায়তা করে, দোয়াও করে। শুধু প্রয়োজনে নয়, অন্যান্য সময়েও যোগাযোগ রাখে।
তারা অমূল্য।

কিছু মানুষ সম্পর্কটা বাঁচিয়ে রাখে কোনমতে। সুখের সময়ে খবর নেয়, শোকের সময়ে তেমন পাশে থাকেনা।
তারা সুহৃদ। পরিচিত জন।

উত্তম হলে নিশ্চিন্তে অধমের সাথে চলতে পারে, বৈ কি।

কিছু স্বজন স্বগোত্রীয়তা পছন্দ করে। নিজেদের এলিট শ্রেণী ছাড়া, কিংবা আর্থিক সমমানের না হলে “ক্লাস”এ রাখেনা, মানে স্বজন বলে স্বীকৃতি বা পরিচয়ও দেয়না। কিন্তু আপনার পার্থিব উন্নতি দেখে আপনাকে নিকটজন করে নেয়ার “ভনিতা” ভালই জানে!
এরা ঘৃনিত।

কিছু মানুষ স্বার্থান্বেষী। প্রয়োজনে খুঁজে বের করবেই, অন্য সময় আপনাকে মনেই রাখবেনা। সুযোগ বুঝে আপনাকে ব্যবহার করবে; আবার অন্য সময় ভাব ধরবে!
এরা পরিত্যাজ্য।

কিছু মানুষ বিপদে কাছে আসবে। কাজ উদ্ধার হলে কেটে পড়বে। অনেক সময় এমন ভাব, যেন আপনাকে কোথায় যেন দেখেছে! কৃতজ্ঞতা দূরে থাক!
এরা কৃতঘ্ন।

সমাজে বিশেষত আমাদের চারপাশে হরেক শ্রেণীর মানুষের বাস।
কার সাথে কিভাবে চলবেন, তা আপনার বিবেচ্য বিষয়।

মানুষ সম্বন্ধে William Shakespeare এর একটি উক্তি প্রণিধানযোগ্যঃ
“What piece of work is a man, how noble in reason,
how infinite in faculties,
in form and moving,
how express and admirable in action,
how like an angel in apprehension,
how like a god!”

কবি রেদোয়ান মাসুদ এর “মানুষ চেনা বড় দায়” কবিতায় তেমনি এক তিক্ত সত্য উঠে এসেছেঃ

“মানুষকে চেনা বড় দায়
যদিও সবার একই রঙের রক্ত
একই মাটির তৈরি হলেও
ভিন্ন সবার বর্ণ ..!”

—————
মোঃ নাজিম উদ্দিন