একুশে ফেব্রুয়ারি : তোড়া ফ্রসঙ্গ হতা

Feb 20, 2021 | ইতিহাস-ঐতিহ্য, সংস্কৃতি-রাজনীতি | 0 comments

Post View : 64
 

একুশে ফেব্রুয়ারি : থোড়া
ফ্রসঙ্গ হতা

 

ভাষা আঁরার মনর ভাব প্রহাশর মুল মাইধ্যম। আর মাতৃভাষা অইলদি আঁরার মা’র ভাষা, মনর ভাষা।
আঁরার সুক, দুউখ্খ্য, ভালা-হারাপ বেআক রহইম্যা অনুভুতি আরেক জনর হাছে হঅনর সুযোক পাই মাআর ভাষা অর্থাৎ মাতৃভাষাত।

ছোডবেলাত একজন শিশু বা গুরঅ পোয়া বা গুরঅ মাইয়্যা পোয়া তার মাআর লঅই তার দারহার বা প্রয়োজন হঅয় কা প্রহাশ গরে। মাআর হাছে শিকে নিজুর আবদার কেএন গরি জানন পরে.. মাআর হাছত তুন শিকি এহজন শিশু তার পরিবার এদ্দে হাসর মাইনসুর লঅই হতা হইত পারে, পারে ভাষা শিকিত।
নিজুর জীবনর সবচেয়ে হষ্টর সমত নিজুর মাআর হাছে যেই ভাষা আঁরা শিকি- ইয়েনর নাম মাতৃভাষা বা মাআর ভাষা।
একুইশে ফেব্রুআরি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস; গোডা পৃথিবীর মানুষ নিজুর মাআর ভাষার ইজ্জুত সম্মান বাড়াইবের লাই আজিয়্যার দিন বিভিন্ন অনুষ্টানর মাইধ্যমে উদযাপন গরিবু।
বেয়াগ্গুনে নিজুর মাআর ভাষারে সম্মান গরন উচিত। প্রত্যেকর লাই নিজুর মাআর ভাষা খুউব দামি, সম্মানর।
একেক ভাষার একেক গুরুত্ব।
আঁরা যারা চিটাগাংত জন্ম গ্রহন গইরজ্যি, তারার লাই চিটাংগে ভাষা অইলদি মনর হোরাক। যেএত্যেই কেউর লয় ফরিচয় অয়, বাড়ি চিটাং হইলে শুদ্ধ ভাষা বাদ দি শুরু গরি চিটাইংগে হতা- বদ্দা অনে কেএন আছন আগে হঅন…

নিজুর স্বকীয় স্বত্তা বজায় রাহিবের লাই অবশ্যই যে যে ভাষা দরহার, তা শিকন ফরিবু, কিন্তু নিজুর মাআর ভাষা যেএন আঁরা ভুলি নযাই, অার পৃথিবীর বেয়াক মানুষ যেএন নাজুর মাআর ভাষা ভুলি ন যাই- এই অনুরোদগান আজিয়্যা বেয়াগ্গুনুর হাছে রাইক্কুম। হন কিঅউর মাআর ভাষা যত ছোট, যত কম দরহারি অক না কেন, হন মাতৃভাষারে যেএন আরা ছোড বা হেয় ন গরি- এ আহবান আজিয়্যা বেয়াগ্গুনুরে।
তবে, যে ভাষাত ফস্ন গরে, এএই ভাষাত উত্তর দেঅন দরহার বুলি আঁই মনে গরি, যেমন,

তুঁই কেএন আছো? উত্তর হতে পারে= আঁই ভালা আছি। (চিটাইংগা)

তুমি কেমন আছো?- আমি ভাল আছি। (প্রমিত বাংলা)

How are you? I am fine. (English)

কাইফা হালুকা- আনা বিখাইর (আরবি)

তুম কেএছে হো -মে বুলকুল ঠিক হু
(হিন্দি)

ni hau ma- wo hen hau –
(চাইনিজ)

ফরিশেষে, আশা গইরজুম, আধুনিকতাত গা ভাসাই নিজুর মাতৃভাষা যেএন আঁরা ফঅরি নযাই,
আঁরার পরবর্তী ফ্রজন্মরে যেএন আঁরা দরকারি আঁর প্রমিত ভাষার ফাসাফাসি নিজুর মাআর ভাষা শিকাই- এই অনুরুদ তাইবু।
ফরিশেষে, হইদ ফারি,
কবি সৈয়দ সুলতানের কবিতায়- ‘কিন্তু যারে যেই ভাষে প্রভু করিল সৃজন/ সেই ভাষা হয় তার অমূল্য রতন।’

——-

(মোঃ নাজিম উদ্দিন

চাটগা /চিটাআং
একুশে ফেব্রুয়ারি দুই আজার এগইশ)