Post View : 13
 

উন্নত প্রজন্মের ভয়ঙ্কর দশা!

আমরা উন্নত এক প্রজন্মের সামনে দাঁড়িয়ে। সামনের এক দশক বা যুগ পেরুলে হয়তো সে প্রজন্মই আমাদের নেতৃত্ব দিবে। শতভাগ আশাবাদী হওয়ার চেয়ে ভয়ানক আশঙ্কা মাথার উপর চেপে বসে ইদানিং! হায়, কী হবে, তাদের নিয়ে!

একসময় যাদের অবাধ্যতা দেখে বলতেন, “থাক না, ছোটমানুষ, বড় হলে ঠিক হয়ে যাবে!” সেসব “ছোট” রা কিন্তু আর ছোট নাই। ভয়ঙ্কর “বড়ো” হওয়ার দিকে এগুচ্ছে তারা! ভয়ঙ্কর কেন? বলছি…।

এ নতুন প্রজন্ম তৈরি করেছে বুলিং। অপরের কষ্ট দেখে আনন্দ পাওয়ার পৈশাচিক দক্ষতা! William Golding রচিত ‘Lord of the Flies” এর শিশু কিশোর চরিত্রগুলোর মতো ভয়ানক নিষ্টুর তারা। অপরের কষ্টার্জিত অর্জনে তাদের ‘হিংসা আর পরশ্রীকাতরতা’ আর নিজের উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়াতে দম্ভের খেদোক্তি!
এ উন্নত প্রজন্মের একটা অংশের “বন্ধু” অনুকরণ অদ্ভুদ। ধার করে বাইক কিনবে বা দূরে ঘুরতে যাবে, বাবার সামর্থ্য না থাকলেও প্রেসার দিয়ে আদায় করবে! তারকা হোটেলে চেক ইন দেখবাে ফেসবুক স্ট্যাটাসে! ওদিকে যার কাছে থেকে ধার করে ফুটানি মারে, সে হোটেল ‘ছালাদিয়া’তেও বসেনা: হয়তো মিতব্যয়ী বলে..
এ উন্নত প্রজন্মের একাংশ ‘অতিদ্রুত’ বড় লোক হতে উন্মুখ। উদ্যোক্তা হবে, তবে ততটা পরিশ্রম করবেনা৷ সফল হবে তবে হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করবেনা। ভাইরাল হবে, তবে মানবিক মূল্যবোধ রাখবেনা!
এ উন্নত প্রজন্ম ‘সালাম’ দেয় বেছে বেছে, কথা বলেনা যেচে যেচে, ধর্ম কর্ম তাদের কারো কারো কাছে সেকেলে ঠেকে! যেকোন কিছুতেই বন্ধুদের নিয়ে পার্টি করবে! বিদেশ যাওয়াই আভিজাত্য ভাবে!
এরা শর্টকাটে সব পেতে চায়। এরা প্রিন্টেড বুক নয়, ই বুকে অভ্যস্থ! এরা বেশভুষায় আধুনিক, আচরণে আধুনিকোত্তর! এরা গ্রামার বুঝে ভাষার writing skill বুঝেনা, বুঝে টপাটপ কলাইন ইংরেজি বুলি! এরা সব কিছুতে স্বার্থের কথা ভাবে। আবেগ ভুলে বেগে চলে।
চোখের পানি এদের কাছে বিরল ঘটনা! ভাবটা এমন যেন- জানের চেয়ে মান বড়! রাখবেনা নিজেকে তবু অপমান সইবেনা! কি এক ভয়ঙ্কর ইগো!
আরো অনেক কথা!
এ প্রজন্মের সুমতি কামনা করি!.


মো: নাজিম উদ্দিন
এপ্রিল ১১, ২০২৩