লাইফ ইজ এ ওয়ান্ডারফুল গিফট, ইনডিড

0
31

জীবনে কোনদিন রাগ বা অভিমান করে না খেয়ে ছিলেন? হ্যাঁ, জেদ বা অভিমান করে? সেদিন যখন পেটের ক্ষুধা তীব্রতর হয়, তখন অন্য খাবার নয়, বরং একটু পানি পান করেও যেন বেঁচে থাকতে পারেন! তখন বাজার মূল্য  সবচেয়ে কম-দামী পানিও হয়ে উঠে সবচেয়ে বেশি মূল্যবান, আকাঙ্খিত, প্রত্যাশিত।

দেশের অনেক জেলার চারদিকে বন্যায় ভাসলে মানুষের কাছে একটা খড় ও অনেক প্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে। যার সব আছে, সে আরো পেলে কি কি স্বপ্ন পূরণ হবে, সেটা ভাবে। যার স্বাস্থ্যে সমস্যা, সে আশা করে কোনোভাবে স্বাস্থ্য ঠিক থাকলেই হয়; যার হাত পা সব আছে আর সাথে আছে সামর্থ্য, সে অনেক পোশাক-সরঞ্জাম, উপকরণ, ব্রান্ডের পারফিউম, কেলভিন ক্লেইনের কাপড় আর নাইক কোম্পানির জুতার চিন্তা করে, আর যার পা নেই, সে চিন্তা করে, বেঁচেই যে আছি, সেটাও কম কী?

জীবনটা অনিশ্চিত, অনির্ধারিত বলেই বিস্ময়কর ভাবে দামী, যার প্রতিটি ক্ষণ যেন এক একটি মুক্তার মতো, যার প্রতিটি দিন যেন এক মুক্তোর মালা…নয়, বরং তার চেয়েও বেশি। প্রিয় নবীজী বলেন, তোমরা পাঁচটি জিনিসের পূর্বে অপর পাঁচটি জিনিসকে মূল্যবান মনে করবে; যার একটি হচ্ছে, রুগ্নতার পূর্বে স্বাস্থ্য, আরেকটি হচ্ছে ব্যস্ততার পূর্বে অবসর আর শেষেরটি হলো: মৃত্যুর পূর্বে জীবন।

শ্রদ্ধেয় আবদুল্লাহ আবু সাইয়েদ এক সাক্ষাৎকারে জীবনের মূল্য নিয়ে হাস্য-চলে বলেছিলেন, একটা বিশাল মরুভূমির বালিকণাগুলো যদি চিনিতে পরিণত হয় আর একটা পিঁপড়াকে সেই চিনির-মহাদেশে ছেড়ে দিলে সে যেভাবে অতি-সম্পদে বিস্মিত হয়, মানুষের জীবনটা ততটা বিশাল, ততটা মূল্যবান, ততটাই দামী।

পৃথিবীর সব সম্পদ দিয়ে একটি সেকেন্ড বা ঘন্টা কেনা যায়? প্রশ্নটি আমার হয়। মনীষা কৈরালার।

মণীষা কৈরালা। ভারতীয় সিনেমা জগতের কিংবদন্তি। নেপালের রাজ পরিবারের এই উত্তরসূরি শুধু রাজ প্রাসাদে নিজেকে, নিজের জীবনকে অনুৎপাদনশীল মূর্তির বেশি ভাবেননি: তাই নিজের পছন্দ অভিনয়কেই বেছে নিলেন। এলেন ভারতে, জয় করলেন কোটি মানুষের হৃদয়। কিন্তু জীবনে সুনাম-সম্পদের যখন মহা-সমারোহ, যখন মরণব্যাধী ক্যান্সারে আক্রান্ত। ডাক্তারের কাছে নিকোটের মৃত্যুঘন্টার আগাম বার্তা বা “বাঁচার সম্ভাবনা একেবারেই নেই” – কথাগুলো শুনে কেঁদে দিলেন। বললেন, এই যে শত শত কোটি টাকা, সম্পদ, সব আমি দিয়ে দিব, শুধু কিছুদিন বাঁচার জন্য যা চিকিৎসা করার করুন। ডাক্তাররা জানালেন, শত কোটি টাকা দিয়েও একটা মিনিট, একটা মুহুর্তও বাঁচানোর সাধ্য কারো নেই।
পরের ঘটনা সবার জানা। বিস্ময়করভাবে বেঁচে গেলেন তিনি। এবার তিনি বুঝলেন, জীবনটা আসলে কী? কী তার সংজ্ঞা।

পুরোপুরি সুস্থ হলেন। বাদ দিলেন আগের মতো ছুটোছুটি। নিজের মনের সাধের পূর্নতা আনার কাজে নেমে গেলেন। শুরু করলেন পাবলিক স্পিকিং। বলতে লাগলেন জীবন থেকে নেয়া কয়েকটি শিক্ষা। যেখানেই যান, সেখানেই সবাইকে বুঝানোর চেষ্টা করেন, কী অমূল্য এই জীবন, কী অমূল্য প্রতিটি ক্ষণ! যিনি নিজের জীবনের সেই অমোঘ শিক্ষা সবাইকে শেয়ার করেছেন: জীবনের প্রতিটি মুহূর্তই খুব মূল্যবান; হেলায়, অসতর্কতার বশে, কোনো মুহূর্তই অপচয় করার মানেই হয়না…।

সংগ্রাম ও সাধনা করে সাফল্যের চূড়ায় আরোহনে বিশ্বব্যাপী যে কয়জন সৃজনশীল উদ্যোক্তা সুপরিচিত, স্টিভ জব তাদের মধ্যে অন্যতম। মৃত্যুশয্যায় নিজের অতীত জীবনের কথা স্মরণ করে চোখের পানি ফেলে দিলেন; জানালেন সেই অমোঘ শিক্ষা। জীবন একটাই। এর প্রতিটা মুহূর্ত সমগ্র পৃথিবীর সকল সম্পদের চেয়েও মূল্যবান।

আর ইসলাম ধর্ম তো প্রতিটা কাজের, প্রতিটা মুহূর্তের ব্যাপারে শিক্ষা-সতর্কতা দিয়েছেন।
সেই সর্বশ্রেষ্ঠ গ্রন্থ কোরআনেই দিয়েছেন:
যে অনু পরিমাণ ভাল করবে সে তার প্রতিদান পাবে আর যে অনু পরিমাণ খারাপ কাজ করবে সেও তার প্রতিদান পাবে। — সূরা যিলযাল -৭-৮।

আর মৃত্যর ফেরেশতা আজরাইল আসলে মৃত্যু যন্ত্রণায় ছটফট করা মানুষ যখন বুঝতে পারে, তার সময় প্রায় ঘনিয়ে আসছে, তখন কান্নায় ভেঙে পড়েন সেই মুমূর্ষু; হয়ত রবের কাছে আবেদনও করেন, আমাকে আর কিছু মুহূর্ত সময় দিন; প্রায়চিত্তের সুযোগ দিন; কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ে মৃত্যু তার খড়গ জীবনের উপর চালিয়ে দেয়….

মনে পড়তে পারে আপনার, বাদশা সাদ্দাতের কথা। হজরত হূদ (আ:) এর কাছে জেনে বর্তমান ইয়েমেনে ১২০ কিমি জুড়ে গড়ে তুলে তার নকল বেহেস্ত। যেখানে ভিত্তি ছিল মারবেল পাথরের। ছাদ ছিল লাল আলমাস পাথরের। দেয়ালের গাথুনী ছিল সোনা আর রুপার ইট দিয়ে। সাদ্দাত নিজে যখন বেহেস্তের দরজায় পা রাখার সময় সময় তার মৃত্যু হয়।সাদ্দাদের সৌভাগ্য হয় নি তার সাজানো বেহেস্ত দর্শনের। সে তার বেহেস্ত দেখার জন্য আজরাইলকে বলে কিন্ত তার সওয়ারী ঘোড়ার উপরে এক পা নামানোর আগেই হায়াৎ না থাকায় তার রুহ কবজ করা হয়।

গানের কলিতে তাই শুনি:
”টাইম হইলে যাইতে হইবে, যাওয়া ছাড়া নাই উপায়”…
ইংরেজ কবি Shakespeare এর ভাষায়,
“Life’s but a walking shadow”..
“It’s a brief candle..”

খুবই সংক্ষিপ্ত এই জীবন স্রষ্টার এক বিস্ময়কর উপহার: এই জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত সমস্ত হীরা-মুক্তার চেয়েও অনেক মূল্যবান, অনেক….

শুধু সময় থাকতে মূল্য বুঝলে….

Life is truly a wonderful gift from Almighty, indeed.

————
মোঃ নাজিম উদ্দিন
nazim3852@gmail.com
১৫-১১-২০১৮