আবারো আমি স্বপ্ন সাজাই

0
50

আবারো আমি স্বপ্ন সাজাই

আবারো আমি স্বপ্ন সাজাই
ধূসর মরুপ্রান্তর অন্তে, যাত্রায় সযত্নে
বালুকার সকল স্পর্শ পদতলে ফেলে-
মরিচীকার সকল চকচক রূপ
বিভীষিকার নির্মম-নিযুত স্বরূপ
অনেকবার দেখা হয়েছে দাদা!
আমি আবারো যাত্রা করি, মশাই।

আমি আবারো শূন্যকে ধরতে চাই
না, মহাশূন্যকে আগে নয়, শূন্যকে
শূন্য, শীর্ণ, জীর্ণ, বিদীর্ণ, মেঘাচ্ছন্ন
কন্টকময় শুরুর সাথে যে কতবার,
কতবার দেখা হয়েছিল আমার!
শত পরিচয়ে একদিন সে শূন্যই
পূর্ণ করেছে অনেক হিয়া মোর,
আমি সে শূন্য থেকে স্বপ্ন সাজাই।

আমি আবারো হবো স্বরবর্ণের সই
সখি বলে ডাকবো সে অ-আ-হস্ব-ই
যখন থেকে হলো বর্ণ পরিচয়,
তখন থেকে রিক্ত আমি নই!
বর্ণ পরশ স্বর্ণ করে মোদের
অব্যক্ত শত মন-কথন-কই
তাই আবারো খুঁজি বর্ণ-কথা-বই।

আমি আবারো সে কলমখানি চাই
মুক্ত মনে আকাশপানে সৌধ সাজাই;
নিয়ত যত অসংকোচ পানে খোঁচায়
শেলি, নজরুল আর জোনাথন সুইফট
কিংবা সুকান্তের শিশুর রাজ্য বাঁচাই
কলম নিয়ে কচিহাতে সেসব ছবি সাজাই
আমি সে কলমখানি।সচল যেন পাই।

খুঁজি আমি স্বপ্নবাজদের আড্ডারই সরাই
হেমিংওয়ের বৃদ্ধ জেলের নেশায়
রবীন্দ্রনাথ -বিভুতিভূষণের অাশায়
আমি খুঁজে ফিরি সৃষ্টিসুখের উল্লাস
ইয়েটস কিংবা সেক্সপিয়ারের আশ্বাস
আমি সে ববন্ধুত্ব চাই ও’ লিয়ারী
আমি বাঁচার যত সদাই করি ফেরি
আমি সংশপ্তক, ওয়ালিউল্লাহ খুঁজি
জীবন থেকে নেয়া গল্পে মজি!
আমি স্বপ্নসৌধের ভিত দিতে নই ভীত
স্বপ্নের উপর স্বপ্নের ইট সাজাই
আমি আগুন ঝরানো স্বপ্ন দেখার নেশায়।

তাই ঘৃণি যত নিরাশ-ভীতু-গাল্পিক
শুনতে উন্মুখ শত যৌবনেরই গান
রাত্রি ফোহালেই আসবে ঊষার প্রভা
ছন্দ নেই, তবু মন্দ নয় আশার আভা!
সুর-তাল-লয়ের ব্যাকরণ আমার নয়-
আমি বলি তা-ই, যাতে আশাই সঞ্চয়!
মিত্র নেই ছন্দে, অমিত্রাক্ষর-অমিল!
তবু মেঘেও দেখি আকাশ উদার- সুনীল!
পড়ে গেলেও উঠতে শিখার আশায়
আমি মরার আগে জীবনটারে বাঁচাই!
আমি আবারো আশার স্বপ্ন সাজাই…

—-
মোঃ নাজিম উদ্দিন
nazim3852@gmail.com
১৬-০৩-২০১৮